1. admin@dailysunrisebangla.com : admin :
বুধবার, ০৪ অগাস্ট ২০২১, ১১:১২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
অসুস্থ সাংবাদিকের পাশে ধামরাই থানার ওসি দেশে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রোজেনেকার করোনা প্রতিরোধী টিকার দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া শুরু স্থগিত সিনিয়র স্টাফ নার্সের মৌখিক পরীক্ষার সূচি প্রকাশ অলিম্পিকের দ্রুততম মানব হয়েছেন ইতালির অ্যাথলেট লেমন্ত মার্সেল জ্যাকবস দুই মডেলের বাসায় অভিযানে মদ,সিসা,ইয়াবা সহ বিপুল পরিমাণ মাদকদ্রব্য উদ্ধার করা হয়েছে অসুস্থ সাংবাদিক মোঃ রেজাউল করিম কে সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিয়ে পাশে গিয়ে দাঁড়ালেন ধামরাই থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ আতিকুর রহমান জাতীয় পরিচয়পত্র না থাকলেও বিশেষ ব্যবস্থায় দেয়া হবে বয়স্কদের টিকা ধামরাইয়ে টাকা না দেওয়ায় বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে রাতভর নির্যাতন খুলনার চার হাসপাতালে আরও ১৬ জনের মৃত্যু আজ বিশ্ব বাঘ দিবস

রোয়াইল ইউনিয়নকে ডিজিটাল ইউনিয়ন হিসাবে গড়ে তুলতে চান বীরমুক্তিযোদ্ধা কাজিমুদ্দিন খান

মোঃ আব্দুর রউফ,ধামরাই (ঢাকা)প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : বুধবার, ১৬ জুন, ২০২১
  • ১৪০ বার পঠিত

আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ঢাকা জেলার অন্তর্গত  ধামরাই উপজেলায় রোয়াইল ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে পদপ্রার্থী তিনবারের সাবেক চেয়ারম্যান ও তিন  তিনবারের ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি বীরমুক্তিযুদ্ধা মোঃ কাজিমুদ্দিন খানকে ঘিরেই সর্বত্র চলছে আলোচনা।

এবারের নির্বাচনে তিনি নৌকা প্রতীকে নির্বাচনে অংশ নিতে দলীয় মনোনয়ন চেয়েছেন বীরমুক্তিযোদ্ধা কাজিমুদ্দিন খান। নির্বাচন যতই ঘনিয়ে আসতেছে,ততই গরম হয়ে উঠতেছে রাজনীতির মাঠ। সকাল থেকে শুরু করে রাত পর্যন্ত– পথে ঘাটে চায়ের দোকানে চলছে নির্বাচনের প্রচার প্রচারণা।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে বীরমুত্তিযোদ্ধা কাজিমুদ্দিন খানের পোস্টার,ব্যানার,ফেস্টুন ঝড় তুলছে। অত্র  ইউনিয়নের প্রত্যেক ওয়ার্ডে , হাট বাজারে  চায়ের টেবিল সহ বিভিন্ন আড্ডায় আলোচনা হচ্ছে মানবতার সেবায় অগ্রগামী সৈনিক কাজিমুদ্দিন খানকে নিয়ে।  ছাত্রজীবনে নিজের জীবনকে বাজিরেখে দেশকে বাচাঁতে স্বাধীনতার যোদ্ধে ঝাপিয়ে পড়ে ছিলেন মহান এই ব্যাক্তি।

তিনি  তিনবারের রোয়াইল ইউনিয়ন আওয়ামী-লীগের সভাপতি হিসাবে দায়িত্ব পালন করে আসছে । সরেজমিনে ঘুরে এলাকাবাসীর কাছে জানা যায়, এবার রোয়াইল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হিসেবে দেখতে চান বীরমুক্তিযোদ্ধা কাজিমুদ্দিন খানকে। বর্তমান সরকারের স্বপ্ন পূরণে কাজিমুদ্দিন খানের কোন বিকল্প নেই বলে জোরদার আলোচনা চলছে অত্র ইউনিউনের  অলি-গলিতে। ইতিমধ্যে প্রচার-প্রচারণায় তিনিই রয়েছে সবার শীর্ষে।এলাকাবাসী বিশ্বাস করেন কাজিমুদ্দিন খান চেয়ারম্যান হলে এই অঞ্চলের সার্বিক উন্নয়ন হবে।

এসব বিষয়ে জানতে চাইলে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের তিনবারের সভাপতি কাজিমুদ্দিন খান জানান, ১৯৭১ সালে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ডাকে সাড়া দিয়ে মহান মুক্তিযোদ্ধে অংশগ্রহন করে নিজের জীবন বাজিরেখে স্বাধীনতার যুদ্ধে ঝাপিয়ে পড়েছিলাম পাকহানাদার বাহিনীর উপর এবং তিনি ধামরাই উপজেলার মুক্তিযোদ্ধার কমান্ডর আলহাজ্ব  বেনজির আহম্মদ এর সাথে ভারতে ট্রেনিং  নিয়ে  তারই নেতিৃত্বে মুক্তিযোদ্ধে ঝাপিয়ে পড়েছিলেন। সেই থেকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শকে ধারণ করে আওয়ামী লীগে রাজনীতি করি, কখনো কারো জমি দখল চাঁদাবাজি মিথ্যা মামলা দিয়ে কাউকে কখনো হয়রানি করিনি।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে করোনা ও বন্যা কালিন সময় গরীব অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে সাহায্য করেছি। আশা রাখি জননেত্রী শেখ হাসিনা ও আমার নেতা স্থানীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব বেনজীর আহমদ আমাকে নৌকা প্রতীক দিবে। তিনি আরও বলেন, দেশ যে গতিতে এগিয়ে চলেছে,সে গতিতে এই ইউনিয়নে কাঙ্খিত উন্নতি হচ্ছে না। অনেকগুলো মৌলিক নাগরিক সুবিধা থেকে এখনও ইউনিয়নবাসী বঞ্চিত।এসব বিষয় আমাকে খুব যন্ত্রণা দিয়েছে। আমি মনে করেছি, এখানে আরও বৃহত্তর পরিসরে দায়িত্ব নিয়ে কাজ করার প্রয়োজন রয়েছে।

প্রতিটি গ্রাম  হবে শহর  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পরিকল্পনা অনুযায়ী যেভাবে দেশ এগিয়ে যাবে, তার সাথে সাথে রোয়াইল ইউনিয়ন এগিয়ে যাবে বলে দাবী কাজিমুদ্দিন খানের। সমাজের অবহেলিত জনগোষ্ঠী ও এলাকার মানুষের জন্য কাজ করায় আমার স্বপ্ন।এতদিন ব্যক্তিগত উদ্যোগে সামাজিক কর্মকান্ডে অংশগ্রহণ করে আসছিলাম।সেবার পরিধি বাড়াতে ইউপি চেয়ারম্যান পদে পূনরায়  নির্বাচন করবো। দলীয় নেতাকর্মী ও শুভাকাঙ্খীদের নিয়ে ভোটারদের বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে নৌকা মার্কায় ভোট প্রার্থনা করছি।আমি খড়ারচর উচ্চ বিদ্যালয় ৭বছর পরিচালানা করেছি।

আমি ইউনিয়ন পরিষদে নিজের জমি দিয়েছি। আমি ইউনিয়ন পরিষদের পিছনে নিজেদের জায়গায় নিজের অর্থায়নে একটি মহিলা স্কুল করেছি। আমার আশা আছে রোয়াইল ইউনিয়নে কোন কলেজ নেই, সেই জন্যে আল্লাহ যদি আমাকে বাচিঁয়ে রাখে তা হলে একটি কলেজ প্রতিষ্ঠিত করবো।

চেয়ারম্যান হিসেবে নির্বাচিত হলে কি ধরনের কাজ করবেন? এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, নির্বাচিত হলে এলাকাবাসীকে সঙ্গে নিয়ে সন্ত্রাস, দুর্নীতি ও মাদকমুক্ত করে একটি বাসযোগ্য অত্যাধুনিক উন্নত জনপদ হিসেবে রোয়াইল ইউনিয়নকে গড়ে তুলবো। বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ার স্বপ্নকে বাস্তবায়ন করতে প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক গৃহীত সকল কর্মযজ্ঞে নিজেকে সমর্পণ করে জনগণের খেদমত করবো। এছাড়া আমি রোয়াইল ইউনিয়নে এর আগে তিনবার চেয়ারম্যান হিসাবে জনগণের ভোটে নির্বাচিত চেয়ারম্যান হিসাবে দায়িত্ব পালন করেছি। সেই কারণে জনগণ আমাকে ভোট দিবে বলে বিশ্বাস করি   তাই আমার নেতার কাছে আমার একটাই দাবি আগামী নির্বাচনে আমাকে নৌকা প্রতিক  দিবে বলে আমি  বিশ্বাস করি। আপনারা আমার জন্য দোয়া করবেন এই বলে তার মনের ভাষা ব্যক্ত করেন সানরাইজ বাংলা কে ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

© স্বত্ব সংরক্ষিত ©২০২১ দৈনিক সানরাইজ বাংলা
Theme Customized BY Theme Park BD