1. admin@dailysunrisebangla.com : admin :
বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১, ১২:৪০ অপরাহ্ন

পরকীয়া প্রেমিকের সাথে স্ত্রীকে আটক রেখে রাতভর নির্যাতন

মোঃ আব্দুর রউফ,ধামরাই (ঢাকা)প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : সোমবার, ২১ জুন, ২০২১
  • ২১১ বার পঠিত

ঢাকার ধামরাইয়ে স্বামী ঢাকা বিমানবন্দরে চাকরি করেন এদিকে তার নিজ ঘরে আপত্তিকরবস্থায় পরকীয়া প্রেমিকের সঙ্গে জনতার হাতে আটক হয়েছে স্ত্রী।পরে ঘরের বরান্দার খুঁটির সঙ্গে বেঁধে রেখে পরকীয়া প্রেমিক জাহাঙ্গীর আলমকে রাতভর নির্যাতন করে আজ সকালে কাজী ডেকে খোলা তালাক দিয়ে কয়েক লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়ে ছেড়ে দিয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এই ঘটনায় রবিবার সকাল ১১টার দিকে ধামরাই উপজেলার সুত্রাপুর গ্রামে মাতাব্বরসহ ইউপি মেম্বার বকুল হোসেন জনতার হাতে আটক ভাকুলিয়া গ্রামের জাহাঙ্গীর আলম পরকীয়া প্রেমিকা ওই গৃহবধূকে তার পিত্রালয়ে পাঠীয়ে দিয়েছে বলে জানাযায়। তবে ওই ইউপি মেম্বার টাকা নেয়ার কথা অস্বীকার করলেও জাহাঙ্গীর আলমকে ছেড়ে দেয়ার কথা স্বীকার করে তিনি বলেন, আমি সুত্রাপুর গ্রামের লোকজনদেরকে সাথে নিয়ে কাজী ডেকে খোলা তালাক দিয়ে পরকীয়া প্রেমিকের সাথে গৃহবধূকে তার পিত্রালয় চৌহাট ইউনিয়নের ভাকুলিয়া গ্রামে পাঠানো হয়েছে।এঘটনায় এলাকায় ব্যাপক তোলপাড়ের সৃষ্টি হয়েছে। এলাকাবাসী ইউপি মেম্বারের এহেন কর্মকান্ডের প্রতিবাদে ও এঘটনার বিচার দাবিতে একট্রা হয়েছে বলে জানা গেছে।

এলাকাবাসী জানান,স্বামী মোস্তফা ওরফে বাবু সাথে ঝড়না আক্তারের গত ৫বছর আগে ইসলামী শরীহা মোতাবেক বিয়ে হয়।তাদের সংসারে ৪ বছরের একটি পুত্র সন্তান রয়েছে। মোস্তফা ঢাকা বিমানবন্দরে চাকরী করেন। সে তার চাকরির সুবাদে সবসময় বাড়ীতে আসতে পারে না। এর মধ্যে তার স্ত্রী ঝড়না আক্তার তার বাপের বাড়ী ভাকুলিয়া গ্রামের জাহাঙ্গীর আলম নামে একটি ছেলের সাথে পরকীয়ায় জড়িয়ে পরেন। একপর্যায়ে তাদের মধ্যে পরকীয়া প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে।

শনিবার দিনগত রাতে জাহাঙ্গীর পরকীয়া প্রেমিক মোস্তফার স্ত্রীর শোবার ঘরে গিয়ে তার সঙ্গে গোপন অভিসারে মিলিত হয়।এই সময় প্রতিবেশীরা টের পেয়ে ওই ঘরের চারপাশ ঘেরাও করে ঘরের ভেতরে গিয়ে ওই প্রেমিক যুগলকে আপিত্তকরবস্থায় আটক করে।এরপর এলাকার লোকজন প্রেমিক জাহাঙ্গীরকে বারান্দার খুঁটির সঙ্গে বেঁধে রেখে শনিবার দিনগত রাতে নির্যাতন করে আটককারিরা। রবিবার সকাল ১১টার দিকে বালিয়া ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের মেম্বার মোঃ আবুল হাসেম বকুল,এম এস বি ইটভাটার মালিক মোঃ রফিকুল ইসলাম, মোঃ দাউদ আলী, মোঃ আব্দুল মালেক টাকার বিনিময়ে লোকজনের কাছ থেকে পরকীয়া প্রেমিক জাহাঙ্গীর আলমকে জনতার প্রবল বাঁধার মুখেও ছেড়ে দেয়া হয় বলে জানা গেছে।

শুধু তাই নয় ঘটনাটি সম্পূর্ণ্যরূপে ধামাচাপা দিতে পরকীয়া প্রেমিক ওই গৃহবধূকে গ্রাম থেকে বিতাড়িত করে তার পিত্রালয় ভাকুলিয়া এলাকায় পাঠিয়ে দিয়েছিন বলেও এলাকাবাসী ওই ইউপি মেম্বারেরসহ মাতাব্বরদের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন। এব্যাপারে ওই ইউপি মেম্বার মোঃ আবুল হাসেম বকুল বলেন, মেম্বার হিসাবে মোস্তফার বাবা সিদ্দিক আমাকে ডেকে নিয়ে গেছে। তবে আমি গিয়ে গ্রামের মাতাব্বরদের নিয়ে মেয়ে ও ছেলের মতামতে কাজী ডেকে খোলা তালাক দিয়ে জাহাঙ্গীর ও গৃহবধূকে স্বামীর বাড়ী থেকে তার পিতার বাড়ী পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর
© স্বত্ব সংরক্ষিত ©২০২১ দৈনিক সানরাইজ বাংলা
Theme Customized BY Theme Park BD