1. admin@dailysunrisebangla.com : admin :
বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১, ১২:১৮ অপরাহ্ন

রমজানের হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেপ্তার ও ফাঁসির দাবিতে এলাকাবাসীর মানববন্ধন

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : শনিবার, ২৬ জুন, ২০২১
  • ১০৪ বার পঠিত

মানিকগঞ্জের শিবালয়ে চাঞ্চল্যকর রমজান আলী হত্যা কান্ডের সকল আসামীদের দ্রুত গ্রেপ্তার ও ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী। দীর্ঘ এক মাস অতিবাহিত হলেও মূল আসামীরা ধরাছোঁয়ার বাইরে থাকায় বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী, রমজান আলীর পরিবারসহ সচেতনমহল এই মানব বন্ধনে অংশ নেয়।

গত ২৬জুন বেলা ১০টার দিকে শিমুলিয়া থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিলটি মহাদেবপুর বাসট্যান্ডে এসে মানববন্ধন করে । মানববন্ধনে পরিবারের পক্ষ থেকে নিহত রমজানের মা বলেন, আমার মত আর যেন কোন মায়ের বুক খালি না হয়। আমি আমার ছেলে হত্যার বিচার ও ফাঁসি চাই। এসময় এলাকাবাসী বক্তারা বলেন, এই হত্যাকান্ডটি খুবই মর্মান্তিক। আমরা খুনিদের অবিলম্বে গ্রেফতার করে তাদের দৃষ্টান্তমূলক বিচারের মাধ্যমে ফাঁসি কার্যকর করার দাবী জানাই প্রধানমন্ত্রীর কাছে ।

উল্লেখ্য গত ২৮মে মানিকগঞ্জের শিবালয় উপজেলার রমজান আলী (২৭) নামে এক যুবককে পরকিয়ার বলি হিসেবে পরিকল্পিতভাবে গলাকেটে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। সকাল সাড়ে ৯টার দিকে উপজেলার শিমুলিয়া ইউনিয়নের শিমুলিয়া এলাকার জনৈক বাতেনের ফসলী জমি থেকে পুলিশ প্রিন্টিং প্রেসের কর্মচারী রমজান আলীর মরদেহ উদ্ধার করে।

রমজান আলীর গ্রামের বাড়ী শিমুলিয়া ইউনিয়নের আগ শিমুলিয়া গ্রামের মৃত লেবু মিয়ার পুত্র। তিনি ঢাকার উত্তরা এলাকায় একটি প্রিন্টিং প্রেসে কাজ করতেন। রমজান আলীর ফুফাতো ভাই নাসির মিয়া জানান, সাপ্তাহিক ছুটি থাকায় বৃহস্পতিবার রাতে ঢাকা থেকে বাড়ী ফিরছিল রমজান। রাত ১০টার দিকে শিবালয় উপজেলার মহাদেবপুর বাজারে পৌঁছার পর তার স্ত্রীর সঙ্গে সর্বশেষ কথা হয়। এ সময় রমজান বলেন, দ্রুত সময়ের মধ্যেই বাড়ি পৌঁছে যাবেন তিনি। কিন্তু ঘন্টা খানেক পরেও বাড়ি না পৌঁছানোয় এবং রমজানের ব্যবহৃত ফোনটি বন্ধ পাওয়ার কারনে পরিবারের সদস্যরা তাকে খুঁজতে বের হয়। রাতে বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজি করেও তাকে পাওয়া যায়নি । পরদিন ২৮ মে সকাল ৯ টার দিকে ফসলী জমিতে তার রক্তাক্ত লাশ পাওয়া যায়।

পরে খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মানিকগঞ্জ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠান। এ ঘটনায় পরিবারের পক্ষ নিহতের মা সাফিয়া বেগম থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। পুলিশ অভিযান চালিয়ে সন্দেহজনকভাবে তার স্ত্রী রেশমাকে আটক করে। জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে রেশমা পুলিশের কাছে পরকীয়ার জন্য তার স্বামী রমজানকে হত্যার কথা স্বীকার করে। এ ঘটনায় রেশমার পরকিয়া প্রেমিক রশিদ মিয়াসহ অন্যান্য আসামীরা এখনও পলাতক ও ধরাছোঁয়ার বাইরে রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর
© স্বত্ব সংরক্ষিত ©২০২১ দৈনিক সানরাইজ বাংলা
Theme Customized BY Theme Park BD