1. admin@dailysunrisebangla.com : admin :
রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০২:০৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
বজ্রপাতে ৫ম শ্রেণির শিক্ষার্থী মৃত্যু ফ্রেইন্ডস২০০০কনফিডেন্স সোসাইটির মিলাদ মাহফিল যুক্তরাজ্যে নতুন পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পেয়েছেন লিজ ট্রাস ইউপি চেয়ারম্যানের নির্যাতনের প্রতিবাদে এলাকাবাসীর মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল ধামরাইয়ে নারী মাদক কারবারীসহ আটক ২ আন্তর্জাতিক বাজারের সংগে সমন্বয় করে এলপিজি’র দাম নির্ধারণ করে বিইআরসি পিএস সি ,জে এস সি আর থাকছেনা জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে আ’লীগ নেতার উপরে হামলা বাড়ীঘর ভাঙচুর ভেনিস চলচ্চিত্র উৎসবে সেরা ছবির পুরস্কার ‘গোল্ডেন লায়ন’ স্কুল-কলেজ খোলায় মাস্কের আড়ালে মিলনমেলার আনন্দ শিক্ষার্থীদের

ধামরাইয়ে বিষ্মুক্ত মাল্টা চাষ

মোঃ আব্দুর রউফ,ধামরাই(ঢাকা)প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : বুধবার, ১১ আগস্ট, ২০২১
  • ৪২ বার পঠিত

সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক উপায়ে বিষমুক্ত সারা বছর ফলের চাহিদা মেটানোর লক্ষ্যই বাগানটি গড়ে তোলা হয়েছে ঢাকার ধামরাই উপজেলার কুশুরা ইউনিয়নের বৈন্যা গ্রামের আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা (আসফ)এর চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ এনামূল হক আইয়ুব নিজ গ্রামে প্রায় ১ একর জায়গা জুড়ে সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক উপায়ে গড়ে তুলেছেন স্বপ্নের  বিশমুক্ত মাল্টাচাষ। এর সাথে রয়েছে বিভিন্ন ফলের বাগান। যা সারা বছর নিজেরদের ফলে চাহিদা মিটাবে। কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের বছর ব্যাপি ফল উৎপাদন প্রকল্পের আওতায় গড়ে উঠা এই মিশ্র ফল বাগানটিতে রয়েছে বারি-১জাতের মাল্টা গাছ, ভিয়েতনামী নারকেল,সিডলস লেবু,পেয়ারাসহ সাত জাতের আমগাছ। মূলত সারা বছর পুষ্টি তথা ফলের চাহিদা মেটানোর লক্ষ্যেই বাগানটি গড়ে তুলা হয়েছে।জাত নির্বাচন,চাষাবাদ ও পরিচর্যার ক্ষেত্রে পরামর্শ সহায়তা দিয়ে চলেছেন ধামরাই উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোঃ আরিফুল হাসান। বীর মুক্তিযোদ্ধার এ বাগানে গিয়ে দেখা যায়,সারি সারি গাছে গাছে ঝুলছে মাল্টা আর মাল্টা।প্রতিটি গাছের শাখায় শাখায় অগনিত মাল্টার ফলন বাগানটিকে দৃষ্টি নন্দন করে তুলেছে। বাগান মালিক বীর মুক্তিযোদ্ধা এনামুল হক আইয়ুব বলেন,বারি-১ জাতের মাল্টা উচ্চ ফলনশীল এবং লাভজনক।আমি আশা করব আমাদের যুবসমাজ ও চাষিরা বারি-১ জাতের মাল্টা চাষ করেল লাভবান হবেন। কম খরচে বারি-১জাতের মাল্টা চাষ করলে নিজেদের চাহিদা মিটিয়ে বাজারে বিক্রি করে স্বাবলম্বী হতে পারবে। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোঃ আরিফুল হাসান বলেন,আমাদের দেশে চাষ উপযোগি বারি-১জাতের মাল্টা উচ্চ ফলনশীল এবং সুস্বাদু ও লাভজনক।তাই এই জাতের মাল্টা চাষ করে দেশের চাহিদা মিটিয়ে বিদেশে বিক্রি করে অর্থনৈতিক ভাবে লাভবান হতে পারবে।এ জাতের মাল্টা চেনার উপায় হলো,মাল্টার রং হবে সবুজ, প্রতিটি মাল্টার পেছনে অবশ্যই পয়সার মত গোলাকার চিহ্ন থাকবে।প্রতিটি গাছের মাল্টা বিক্রি করে পাওয়া যাবে সাড়ে তিন থেকে সাড়ে চার হাজার টাকা।চাষি ও যুবসমাজ এ জাতের মাল্টা চাষে ঝুঁকলে স্থানীয় চাহিদা পূরণ করে বিদেশে মাল্টা রপ্তানি সম্ভব হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর
© স্বত্ব সংরক্ষিত ©২০২১ দৈনিক সানরাইজ বাংলা
Theme Customized BY Theme Park BD