1. admin@dailysunrisebangla.com : admin :
মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২, ১১:২৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
চলতি ঈদে মোট চারটি সিনেমা রিলিজ হয়েছে স্ত্রীসহ দুই কন্যাকে জবাই করে হত্যা করলো ঋণের চাপে মানসিক বিকারগ্রস্থ স্বামী নিউরন নার্সিং ছাত্রছাত্রীদের বিদায় সংবর্ধনা ঠাকুরগাঁওয়ে জিংক ধানের কৃষক মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত ধামরাই উপজেলার সূতিপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে নৌকার মনোনয়ন পেলেন রেজাউল করিম রাজা ধানকোড়া গিরীশ ইনস্টিটিউশনের  এসএসসি- ৯৩ ব্যাচের বন্ধুদের মিলন মেলা অনুষ্ঠিত না ফেরার দেশে ইকোপার্কে ঘুরতে যাওয়া শিশু রাফি বায়তুল মোকাররমে পর্যায়ক্রমে ঈদুল ফিতরের পাঁচটি জামাত অনুষ্ঠিত  হবে ৩ মে থেকে ঢাকা ও ঢাকার পশ্চিমাংশে কিছু এলাকায় গ্যাস সঙ্কট থাকবে শর্ট সার্কিটের আগুনে পুড়ে ছাই মোটরসাইকেলের গ্যারেজ

গ্যাসের চুলার লিকেজে আগুন লেগে দুই বোনের মৃত্যু

দৈনিক সানরাইজ বাংলা ডেস্ক
  • আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২২
  • ৩০২ বার পঠিত

গ্যাসের চুলার লিকেজ থেকে আগুন লেগে দুই সহোদর বোনের মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে।গত ৩ ফেব্রুয়ারি সকাল সাড়ে দশটার দিকে বিকট আওয়াজের পর চট্টগ্রামের একটি পাঁচতলা ভবনের ফ্ল্যাটে আগুন লাগে। চার দিন পর দগ্ধ দুই বোন ঢাকার শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।

বড় মেয়ে সাবরিনা (২৩) একটি প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অনার্স শেষ করেছিলেন। আর ছোট মেয়ে সামিয়া(১৮) মহসিন কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার্থী ছিলেন।

বৃহস্পতিবার (৩ ফেব্রুয়ারি) চট্টগ্রাম নগরীর বাকলিয়া থানার রাহাত্তারপুল এলাকায় বিসমিল্লাহ টাওয়ার নামে একটি পাঁচতালা ভবনে আগুনে দুই বোন দগ্ধ হন। ফায়ার সার্ভিসের তথ্য মতে, গ্যাসের চুলার লিকেজ থেকে জমে থাকা গ্যাস এই আগুনের কারণ।

বড় বোন সাবরিনার শরীরের ৫৬ শতাংশ পুড়ে গিয়েছিল। তিনি  গত রোববার (৬ ফেব্রুয়ারি) সকালে মারা যান।

বড় বোনের মৃত্যুর একদিন পরই চলে যান সামিয়াও। গতকাল সোমবার (৭ ফেব্রুয়ারি) সকালে তার মৃত্যু হয়। তার শরীরের ৩৫ শতাংশ দগ্ধ হয়েছিল। দুই বোনেরই শ্বাসনালী পোড়ে যাওয়ায়   মৃত্যুর কারন বলছিলেন  চিকিৎসক।

শেখ হাসিনা বার্ন ইনস্টিটিউটের আবাসিক সার্জন এস এম আইয়ুব হোসেন বলেন, চট্টগ্রাম থেকে এই দুই বোন দগ্ধ হয়ে ৫ ফেব্রুয়ারি বার্ন ইউনিটে এসেছিল।

হতভাগা দুই মেয়ের বাবা আলাউদ্দিন খালেদ জানান, দুই বোন ৩ ফেব্রুয়ারি দগ্ধ হয়ে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। পরে তাদের অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নিয়ে যাই। সেখানে সোমবার (৭ ফেব্রুয়ারি) সকালে আমার ছোট মেয়ে সামিয়া খালেদ মারা যান। আর রোববার (৬ ফেব্রুয়ারি) বড় মেয়ে সাবরিনা খালেদ মারা গেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর
© স্বত্ব সংরক্ষিত ©২০২১ দৈনিক সানরাইজ বাংলা
Theme Customized BY Theme Park BD