1. admin@dailysunrisebangla.com : admin :
মঙ্গলবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ০৫:৫৩ পূর্বাহ্ন

প্রশিকার অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্বের জেরে বিষপ্রয়োগে ১২লাখ টাকার মাছ নিধনের অভিযোগ

এ.এইচ মিলন মানিকগঞ্জ নিজস্ব প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : বুধবার, ৮ জুন, ২০২২
  • ১৭৪ বার পঠিত
মানিকগঞ্জে প্রশিকার অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্বের জেরে পুকুরে বিষপ্রয়োগ করে ১২লাখ টাকার মাছ নিধনের অভিযোগ উঠেছে প্রতিষ্ঠানটির কতিপয় সাবেক কর্মচারীদের বিরুদ্ধে।
গত ৩ জুন শুক্রবার রাতের কোন এক সময়ে এই বিষ প্রয়োগের ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে। এ ঘটনার প্রেক্ষিতে প্রশিকা ট্রাস্টের একাউন্ট ম্যানেজার মো: নজরুল ইসলাম সাটুরিয়া থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে।
অভিযোগে বলা হয়েছে, প্রশিকা অফিসের পূর্ব পাশের ৩ নং পুকুরে শনিবার ভোরে স্টাফরা দেখতে পায় বিভিন্ন প্রজাতির মাছ মরে ভেসে উঠছে। এর আগে শুক্রবার রাত আনুমানিক ৮ ঘটিকার সময় তাদের জেনারেল ম্যানেজার শহিদুল ইসলামের মোবাইলে ফোন দিয়ে মাছ ক্রয়ের অজুহাতে কি পরিমান মাছ আছে তা জানতে চায় কমল হাওলাদার নামের এক ব্যক্তি। কমল ট্রাস্টের পাশেই নাজিমউদ্দিনের পুকুরে নিয়মিত মাছ ধরে, আর নাজিমুদ্দিন প্রশিকা থেকে বহিস্কৃত। অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে, নাজিমুদ্দিন, নুরুল ইসলাম, আব্দুর রাজ্জাক, ফজলুল হক, আব্দুল বাসেত এর বিরুদ্ধে ইতিপূর্বেও অভিযোগ দায়ের করা আছে। এ সকল ব্যক্তিবর্গ পুকুরে বিষ প্রয়োগ করে মাছ নিধন নাশকতার সাথে জড়িত।
প্রশিকা মানব সম্পদ উন্নয়ন কেন্দ্র ট্রাস্টের জেনারেল ম্যানেজার মোঃ শহিদুল ইসলাম বলেন, এই সম্পত্তি কোন ব্যক্তির নয় দেশের, অথচ নাজিমুদ্দিন, নুরুল ইসলাম, আব্দুর রাজ্জাক, মো: ফজলুল হক, আব্দুল বাসেত পূর্ব শক্রতার জের ধরে বেশ কিছু ফলগাছসহ উক্ত পুকুরের পানিতে গোপনে কৌশল করে বিষ মিশিয়ে মাছের ক্ষতিসাধন করেছে, যার বাজার মূল্য প্রায় ১২ লক্ষাধিক টাকা। উল্লেখ্য, নানা ধরনের জাতীয় ইস্যুতে মুখ্য ভুমিকা পালন করে আসা এক সময়ের শীর্ষ এনজিও ব্যক্তিত্ব হিসেবে পরিচিত বরেণ্য ব্যক্তিত্ব এবং দেশের এনজিওদের সমন্বয়কারী প্রতিষ্ঠান এডাবের সাবেক চেয়ারম্যান ডঃ কাজী ফারুক আহমেদ এর নিজ হাতে গড়া প্রশিকা।
মানিকগঞ্জ জেলাধীন সাটুরিয়া উপজেলার ধানকোড়া ইউনিয়নের কৈট্টাতে অবস্থিত প্রশিকার কনভেনশন সেন্টারে এক সময়ে অনেক আন্তর্জাতিক সম্মেলন হতো, নানাবিধ সেবা চালু ছিলো, কিন্তু ট্রাস্টের সম্পত্তি নয়ছয় করা সহ নানাবিধ দূর্নীতির অভিযোগ তুলে কমিটির মধ্যে গ্রুপিং এবং পাল্টাপাল্টি হামলা মামলায় বর্তমানে বিপর্যস্ত প্রতিষ্ঠানটি তার জৌলুশ হারাতে বসেছে। এই ট্রাস্টের পরিচালনা পর্ষদ ও সম্পত্তি নিয়ে উচ্চ আদালতে বিচারাধীন মামলাও রয়েছে একাধিক। সেই ধারাবাহিকতায় এবারের এই বৈরীতার বহি:প্রকাশ ঘটেছে বলে মনে করছে এলাকাবাসী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর
© স্বত্ব সংরক্ষিত ©২০২১ দৈনিক সানরাইজ বাংলা
Theme Customized BY Theme Park BD