1. admin@dailysunrisebangla.com : admin :
বুধবার, ১০ অগাস্ট ২০২২, ০৭:৩২ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
১৬০জন বীরমুক্তিযোদ্ধার মাঝে সার্টিফিকেট ও স্মার্ট কার্ড বিতরণ বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিব এর জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে সুবিধাভোগিদের মাঝে সেলাইমেশিন বিতরণ বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথিরিটি (বিআরটিএ) অভিযান শোক দিবস উপলক্ষে প্রস্তুতি সভা শ্লীলতাহানির বিচার চেয়ে,চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে নারী নেত্রীর সংবাদ সম্মেলন সাটুরিয়ায় পূর্ব শুত্রুতার জেরে বাড়ীতে হামলা ভাংচুর ও প্রাণনাশের চেষ্টা বৃক্ষরোপন ও বৃক্ষমেলা উদ্বোধন সন্ত্রাসী হামলার ঘটনার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন বিদ্যুৎস্পর্শ থেকে বেঁচে গেলেন শ্রমিকবাহী বাসের ৫০জন পোশাক শ্রমিক দিনেদুপুরে র‍্যাব পরিচয়ে ব্যবসায়ীর সাড়ে ৪ লাখ টাকা ছিনতাই

সাটুরিয়ায় পূর্ব শুত্রুতার জেরে বাড়ীতে হামলা ভাংচুর ও প্রাণনাশের চেষ্টা

সাটুরিয়া (মানিকগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ
  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ৪ আগস্ট, ২০২২
  • ৮৭ বার পঠিত

পূর্ব  শুত্রুতার জের ধরে প্রকাশ্যে দিবালোকে বাড়ীঘরে সশস্ত্র সন্ত্রাসী হামলা ভাংচুর ও প্রাণনাশের চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে।এ অভিযোগের তীর প্রতিবেশী জাহাঙ্গীর আলম গংদের বিরুদ্ধে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে ঘটনাটি ঘটেছে সাটুরিয়া উপজেলা ধানকোড়া ইউনিয়নের গোলড়া গ্রামে। এ ব্যাপারে সাটুরিয়া থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়েছে বলে জানা গেছে। সরেজমিনে গেলে ভুক্তভোগি পরিবার ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান,মৃত আব্দুল কুদ্দুস মাতাব্বরের ছেলে মোঃ মাহবুবুর রহমানের সঙ্গে প্রতিবেশী মোঃ জাহাঙ্গীর আলম গংদের চরম শুত্রুতা চলে আসছে দীর্ঘ্যদিন ধরে। এরই জের ধরে বৃহস্পতিবার দুপুর অনুমান ১২টার দিকে জাহাঙ্গীর আলম ১০-১২জন সন্ত্রাসী প্রকৃতির লোক নিয়ে দেশীয় অস্ত্রেসস্ত্রে সজ্জিত হয়ে মাহবুবুর রহমান মিলনের বাড়ীতে সশস্ত্র হামলা চালায়।

ইহা প্রতিহত করার চেষ্টা করলে হামলাকারিরা ক্ষিপ্ত  হয়ে ওই বাড়ীর লোকজনের প্রাণনাশের চেষ্টা ও ব্যাপক ভাংচুর ক্ষতিসাধন করে। স্থানীয় লোকজন ভুক্তভোগি পরিবারের লোকজনের ডাক চিৎকারে এলাকাবাসি এগিয়ে এসে হামলাকারিদের কবল থেকে তাদের রক্ষা করেন। মাহবুর রহমান মিলন বলেন,দীর্ঘ্যদিন ধরে প্রতিবেশী জাহাঙ্গীর আলমের সঙ্গে আমার চরম শুত্রুতা ও বিরোধ চলে আসছে। এরই জের ধরে আমার বাড়ীতে হামলা ভাংচুর ও প্রাণনাশের চেষ্টা করে।

এলাকার লোকজন এগিয়ে এসে আমাদের উদ্ধার করেন। এব্যাপারে আমি সাটুরিয়া থানায় হামলাকারিদের বিরুদ্ধে একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছি। আমি এর ন্যায় বিচার চাই। ওরা মাঝেমধ্যেই এমন ঘটনা ঘটিয়ে থাকে। এলাকাবাসীর সহায়তায় এখনও টিকে আছি। জাহাঙ্গীর আলম তার ওপর আনিত অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন,আমি কিছুই করেনি শুধু টিনের বেড়া খুলে যাতায়াতের জন্য উন্মুক্ত করেছি।

যেস্থান দিয়ে টিনের বেড়া নির্মাণ করা হয়েছে সে স্থান দিয়ে আমরা চলাচল করে থাকি। মাহবুবুর রহমান মিলনের বৃদ্ধা মা বলেন,ওরা ডাহা মিধ্যা কথা বলেছে। এটা আমাদের বাড়ী এ স্থান দিয়ে কোনদিনই রাস্তা ছিলনা।ওদের বাড়ীর সামনেইতো সরকারি সড়ক। ওরা আমাদের বাড়ীর ওপর দিয়ে কোথায় যাবে। আমার ছেলেকে একা পেয়ে ওরা বার বার হয়রানি করে আসছে।

সাটুরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি)মোঃ আশরাফুল ইসলাম বলেন,এঘটনায়,ভুক্তভোগি মাহবুবর রহমান মিলন একটি লিখিত আভিযোগ করেছেন। বিষয়টি তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর
© স্বত্ব সংরক্ষিত ©২০২১ দৈনিক সানরাইজ বাংলা
Theme Customized BY Theme Park BD