1. admin@dailysunrisebangla.com : admin :
মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৩:১৩ অপরাহ্ন

অপরাধীদের গ্রেফতার করা হচ্ছে -আইনমন্ত্রী আনিসুল হক

ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ৮ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ৫৬ বার পঠিত

বিএনপির আন্দোলন দমন করতে নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করা হচ্ছে না। যারা জালাও পোড়াও করে সাধারণ মানুষের জানমালের ক্ষতি করছে সেই সব অপরাধীদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হচ্ছে। আন্দোলনের নামে যদি কেউ সাধারণ মানুষের ক্ষতি করার চেষ্টা করবে তাদের কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না জানিয়ে কালামপুর বাজারে ৩কোটি টাকা ব্যায়ে নবনির্মিত সাব রেজিষ্ট্রার ভবন উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বৃহস্পতিবার (৮ সেপ্টেম্বর) সকাল ১২টার দিকে ধামরাই উপজেলার কালামপুর আমাতন নেছা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে নবনির্মিত সাবরেজিষ্ট্রার অফিসের ভবন উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের আইন বিষয়ক মস্ত্রালয়ের আইনমন্ত্রী অ্যাডভোকেট আনিসুল হক এমপি এই সব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন বিএনপি শান্তিপূর্ণ ভাবে আন্দোলন করলে সরকার তাদের কোন কর্মসুচিতে বাধাঁ দেবে না। তবে আন্দোলনের নামে যদি তারা জ¦ালাও পেড়াও করে মানুষের জানমালের ক্ষতি করে সরকার সেই ক্ষেত্রে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। বর্তমানে বিএনপির কোন নেতাকর্মীদের মিথ্যা মামলা দিয়ে গ্রেফতার করা হচ্ছে না। অনেক মামলায় বিএনপির নেতাকর্মীরা পালিয়ে ছিল সেইসব মামলায় তাদেরকে পুলিশ গ্রেফতার করছে। এখানে আমাদের কিচুই করার নেয়। অপরাধ করলে তার শাস্তিতো পেতেই হবে।

এছাড়া তিনি আরও বলেন,বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া এখন অনেক মামলায় জামিনে আছে। তিনি বর্তমানে ভাল আছে। খালেদা জিয়া অসুস্থ্য হলে দেশের আইন অনুযায়ী তাকে চিকিৎসা নিতে হবে। দেশের প্রচলিত আইন অনুযায়ী বিদেশে গিয়ে চিকিৎসা নেওয়ার কোন সুযোগ নেয়। তিনি বলেন আমাদের আগের সাবরেজিষ্ট্রার অফিস গুলি ঠিকানা ছিল সরকারী কোন পুরাতন পরিতাক্ত ভবন।অনেক সাবরেজিষ্ট্রার অফিস ছিল জড়াজীর্ণ ভবন যা বিষ্টি এলে এক দিকে পানি পড়তো অন্য দিকে কোন রকমের কাজ চলতো। এছাড়া দলিল লেখনদের ছিল মাথার উপরে ভাঙগা চোড়া টিনের ঘর। সেখানে পাটি বিছিয়ে কোন রকমে চলতো দলিল লেখার কাজ। শুধু অবকাঠামো সমস্য নয়। সমস্য ছিল মুল দলিল পেতে বছরের পর বছর অপেক্ষা করতে হতো।

নকল নবিশদের বেতন ভাতা পেতে বছরের পর বছর ঘুরতে হত। কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষনের কোন ব্যবস্থা ছিল না। সেই সকল সমস্যকে পিছনে ফেলে বিগত সাত বছর ধরে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপে সাবরেজিষ্ট্রার অফিসগুলি বৈল্পবিক উন্নয়নের জন্য সেই সকল সমস্য গুলি সমাধান করে দেশ এগিয়ে চলছে। সেই সাথে সাবরেজিষ্ট্রার অফিসারদের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করে দিয়েছে।সরকার সাবরেজিষ্ট্রার অফিসারদের বেতন ভাতার বাড়িয়ে দিয়েছেন। তাই আপনারা সাধারণ মানুষের সেবা করবেন বলে আমি আশা করি। বাংলাদেশের প্রতিটি সাবরেজিষ্ট্রার অফিসের সামনে একটা করে অভিযোগ বক্স  তৈরি করে দেওয়া হবে। সাধারণ মানুষের অভিযোগ গুলি সেখানে জমা করবে।আমরা সেই অভিযোগ দেখে ব্যাবস্থা গ্রহণ করবো। পরিশেষে তিনি দেশের উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে আবারও নৌকায় ভোট দিয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর হাতকে শক্তিশালী করতে বললেন।

এই সময় বিশেষ অথিতি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, ঢাকা জেলা আওয়ামী-লীগের সভাপতি ও ঢাকা-২০ ধামরাই আসনের সংসদ সদস্য এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রালয়ের স্থায়ী কমিটির সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব বেনজির আহমদ,সাবেক সংসদ সদস্য বীরমুক্তিযোদ্ধা আলহা্জ্ব এম এ মালেক, বাংলাধেশ নিবন্ধন অধিদপ্তরের মহাপরিদর্শক মোঃ শহীদুল আলম ঝিনুক,আতিরিক্ত জেলা প্রশাসক রাজস্ব ভাস্ককর দেবনাথ বাপ্পী,ঢাকা জেলা রেজিষ্ট্রার মোসাঃ সাদেকুর নাহার,ধামরাই উপজেলা নির্বাহী অফিসার হোসাইন মোহাম্মদ হাই জকি, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সাভার সার্কেল মোঃ শহীদুল ইসলাম, ধামরাই উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ মোহাদ্দেছ হোসেন, ধামরাই পৌর মেয়র আলহাজ্ব গোলাম কবির মোল্লাসহ প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর
© স্বত্ব সংরক্ষিত ©২০২১ দৈনিক সানরাইজ বাংলা
Theme Customized BY Theme Park BD